রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০, ০৪:০০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম :
বিজিবি ও ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে সংবাদ সম্মেলন ভুক্তভোগীর || হয়রানির অভিযোগ চাঁপাইনবাবগঞ্জে এডাবের বার্ষিক সাধারণ সভা চাঁপাইনবাবগঞ্জ আদালত প্রাঙ্গণে বিপুল পরিমাণ মাদক ধ্বংস। উত্তর কোরিয়ায় করোনার টিকা গবেষণাগারে হ্যাকারদের হামলা ১৭ দিনের নবজাতককে হত্যার কথা স্বীকার করলেন মা সাত ব্যাংকে ৭৭১ পদের নিয়োগ প্রক্রিয়া স্থগিত ‘আদিপুরুষ’ সিনেমায় প্রভাসের সীতা হচ্ছেন কৃতি সাকিবের মাইলফলক করোনা বাড়লেও সরকারের প্রস্তুতি নিয়ে সংশয়: জিএম কাদের বিএড কোর্সে ভর্তি হওয়া যাবে যেসব কলেজে নির্বাচনকে ঘিরে জম্মু-কাশ্মীরে থমথমে পরিস্থিতি ভ্যানগাড়িকে বাঁচাতে গিয়ে বাস খাদে, নিহত ৩ আদালতে টিকছে না ট্রাম্পের দায়ের করা মামলা অস্ট্রেলিয়া সফরে নেই ইশান্ত, অনিশ্চিত রোহিত আবার উত্তপ্ত কাশ্মীর, ২ ভারতীয় সেনা নিহত শীতকালে হাত-পায়ের শুষ্কতা এড়াতে করণীয় বিজিবির শিবগঞ্জ সীমান্তে বিশেষ অভিযানে আসামীসহ ইয়াবা-ফেন্সিডিল উদ্ধার চাঁপাইনবাবগঞ্জে ডিবি পুলিশের অভিযানে রামকৃষ্টপুর মহল্লার মাসুদ গ্রেপ্তার শেষ শ্রদ্ধা জানাতে আসা ম্যারাডোনা ভক্তদের সঙ্গে পুলিশের সংঘর্ষ আফগানিস্তানে যুদ্ধাপরাধ : ১০ সেনাকে বরখাস্ত করতে পারে অস্ট্রেলিয়া

চাঁপাইনবাবগঞ্জে আ.লীগের দুগ্রুপে একই স্থানে সভা পাল্টা প্রতিবাদ সভার ডাক|| রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের আশঙ্কা

কপোত নবী
  • প্রকাশের সময় : বৃহস্পতিবার, ৫ নভেম্বর, ২০২০
  • ৩৮৭ জন পড়েছেন


চাঁপাইনবাবগঞ্জে আওয়ামী লীগের দুই পক্ষের একই স্থানে সম্মেলন এর ডাক দেয়ায় উত্তেজনা সৃষ্টি হয়েছে। এতে যে কোন সময় দু পক্ষের নেতাকর্মীদের তুমুল রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষের সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে।

জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি, জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান ও বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মঈনুদ্দিন মন্ডল বলেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ পৌর আওয়ামী লীগের কিছু অনৈতিক ও উদ্দেশ্য প্রমোদিত কর্মকান্ড তুলে ধরতে চাই। গত ১২ সেপ্টেম্বর পৌর আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভায় ৫ নং ওয়ার্ড ব্যাতীত আওয়ামী লীগের কাউন্সিল পৌর নির্বাচনের পর করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

কিন্তু দুঃখ্যের বিষয় বর্ধিত সভার নামে পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক উদ্দেশ্য প্রমোদিত হয়ে বিভিন্ন ওয়ার্ডে কাউন্সিলের নামে দলের নেতাকর্মীদের মধ্যে বিরোধ ও বিশৃঙ্খলার সৃষ্টির অপকৌশল চালিয়ে যাচ্ছেন।

আমি ১৫টি ওয়ার্ডের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে পৌর নির্বাচনের আগে কাউন্সিল করা থেকে বিরত থাকার জন্য পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদককে পত্র প্রেরণ করি। কিন্তু তারা তা কর্ণপাত না করে গত ২৫ অক্টোবর ৪নং ওয়ার্ডে কাউন্সিল করেন। ওয়ার্ড কমিটির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদে একাধিক প্রার্থী হওয়ায় উপস্থিত কাউন্সিলরগণ নেতা নির্বাচনের জন্য নির্বাচনের মাধ্যমে করার জোরালো দাবি জানান।

কিন্তু তাদের কথা উপেক্ষা করে জোরপূর্বক স্বেচ্ছাচারী ভাবে সভাপতি অধ্যাপক শরিফুল ইসলাম ও সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. মিজানুর রহমান সাধারণ সম্পাদক পদে তাদের পছন্দের প্রার্থী নব্য আওয়ামী লীগার (জাসদ -বিএনপি থেকে আগত) মুজিব আদর্শহীন বিভিন্ন অভিযোগে অভিযুক্ত হাইব্রিডের নাম ঘোষণা করেন। সে জালিয়াতি, চেক ডিজওনারসহ বিভিন্ন অভিযোগে অভিযুক্ত যা বিভিন্ন দৈনিকে প্রকাশিত হয়।

এতে পৌর আওয়ামী লীগের অন্য নেতৃবৃন্দ সংবাদ সম্মেলন করে আমার কাছে আবেদন করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য। এ আগে ৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিল একই কায়দায় ১০ অক্টোবর একই কাজ করতে গেলে তা ভন্ডুল করে দেয় প্রকৃত আওয়ামী লীগ কর্মীরা।
২ নভেম্বর ১০নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদকের বাড়িতে বোমা হামলা হয়। এতে করে পৌর আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মধ্যে ভিতির সঞ্চার হয়েছে।

এমন কর্মকাণ্ড ওয়ার্ডে সংগঠিত আওয়ামী লীগকে বিভিন্ন দলে উপদলে বিভক্ত করে ছত্রভঙ্গ করার জঘন্যতম এই কূটকৌশল বলে পৌরবাসী মনে করেন। এর ফলে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ চরমভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হবে। আসন্ন পৌরসভা নির্বাচনে এর বিরুপ প্রতিক্রিয়া পড়বে বলে মনে করা হচ্ছে।

এমন অবস্থায় দলে শৃঙ্খলা ও ঐক্যবদ্ধ থাকার স্বার্থে যেখানেই অগণতান্ত্রিক স্বেচ্ছাচারী ওয়ার্ড কাউন্সিল করার চেষ্টা করা হবে ঠিক সেখানেই তার প্রতিবাদ সভা করা হবে। এরই ধারাবাহিকতায় আমি আজ ৫ নভেম্বর বিকেলে নামোনিমগাছি খামার সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে এক প্রতিবাদ কর্মসূচি ঘোষণা করছি।

এ ব্যাপারে পৌর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. মিজানুর রহমান এ প্রতিবেদককে জানান, পূর্ব নির্ধারিত সময়েই ৭নং ওয়ার্ডের কাউন্সিল অনুষ্ঠিত হবে।

শেয়ার করুন

এই সম্পর্কিত আরও সংবাদ
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত ২০২০

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Theme Developed BY Ashik